‘পুলিশ যখন অপরাধী’—চাকরি হারিয়েও চোরাই সিন্ডিকেটের ‘দলনেতা’

নগরে চোরাই মোটরসাইকেল বিক্রি সিন্ডিকেটের মূল হোতা মামুনকে স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) রাতে ইপিজেড থানার আলীশাহ পাড়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-৭ এর একটি দল।

গ্রেপ্তাররা হলেন- মো.মামুন উর রশিদ (৪২) ও তাঁর স্ত্রী আকলিমা বেগম (৩৬)।

আরও পড়ুন: ‘চাকরির লোভ’ দেখিয়ে নারী-শিশুদের পতিতার বাজারে বেচাকেনা করত সক্রিয় সিন্ডিকেট

বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র পরিচালক (মিডিয়া) মো.নুরুল আবছার আলোকিত চট্টগ্রামকে জানান, একটি চক্র দীর্ঘদিন ধরে চোরাই মোটরসাইকেল ক্রয়-বিক্রয় করে আসছে—এমন তথ্যে নজরদারি শুরু করি। একপর্যায়ে গতকাল (সোমবার) রাতে ইপিজেড থানার আলীশাহ পাড়া এলাকায় চক্রের সদস্যদের অবস্থানের খবরে অভিযান পরিচালনা করে দুজনকে গ্রেপ্তার করি। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, মামুন উর রশিদ একসময় পুলিশের সদস্য ছিলেন। বিভিন্ন অপরাধের কারণে তিনি চাকুরিচ্যুত হন। এরপর থেকে তিনি মোটরসাইকেল চোর সিন্ডিকেটের সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। তার সহযোগী হিসেবে কাজ করেন স্ত্রী আকলিমা বেগম।

এছাড়া মোটরসাইকেল চুরি এবং ক্রয়-বিক্রয়ে মাধ্যম হিসেবে কাজ করেন রাউজানের অভি এবং হালিশহর এলাকার অনিক। তাদের মাধ্যমে মামুন চোরাই মোটরসাইকেলে পুলিশের লোগো লাগিয়ে হস্তান্তর করেন ক্রেতার কাছে। এ কাজে জড়িত অভি ও অনিককে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। আইনানুগ প্রক্রিয়া শেষে সংশ্লিষ্ট থানায় মামুন ও আকলিমাকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এএইচ/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm