বিরোধিতাকারীরা মসজিদ-কবরস্থানে জায়গা পাবে না—চেয়ারম্যান প্রার্থীর ঘোষণা

নৌকা মার্কায় ভোট না দিলে কবরস্থানে কবর দিতে দেওয়া হবে না বলে ঘোষণা দিয়েছেন কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম।

সোমবার (১ নভেম্বর) রাতে হলদিয়াপালং ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের মনির মার্কেট এলাকায় নৌকার প্রচারণা অফিস উদ্বোধনের সময় এ ঘোষণা দেন তিনি।

তিনি বলেন, যারা নৌকার বিরোধিতা করছে এবং ভোট দেবেন না তাদের চিহ্নিত করা হয়েছে। তারা মারা গেলে কবরস্থানে কবর দিতে দেওয়া হবে না। এমনকি তাদের মসজিদেও নামাজ পড়তে দেওয়া হবে না।

এ বক্তব্যের পর তাঁকে নিয়ে উপজেলাজুড়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

এদিকে এ প্রচারণা সভা ও অফিস উদ্বোধনের সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম উপজেলার কোটবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবু ছিদ্দিক।

Thai Food

এ বক্তব্যের বিষয়ে উপজেলার কোটবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবু ছিদ্দিক বলেন, চলমান ইউপি নির্বাচনে এলাকার কিছু ভোটার নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর বিরোধিতা করছেন। তাদের উদ্দেশ্যে হলদিয়াপালং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম সর্তকবার্তা হিসেবে এ কথা বলেছেন। তাঁর গ্রামে যারা নৌকার বিরুদ্ধে ভোট করছেন তারা মারা গেলে কবরস্থানে কবর দিতে দেবেন না বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

আরও পড়ুন : জালিয়াতি—জেলে পাঠানো হলো পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যানকে

একই প্রসঙ্গে উখিয়া উপজেলার ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম বলেন, নৌকার প্রার্থী অধ্যক্ষ মো. শাহ আলমের কিছু আত্মীয়স্বজন নির্বাচনে নৌকার বিরোধিতা করছে। মূলত তাদের উদ্দেশ্যে তিনি এ বক্তব্য দিয়েছেন। তবে এটি পরিবার-পরিজন বলে অধিকার নিয়ে তিনি একথা বলেছেন।

এদিকে এ বক্তব্যে বিষয়ে জানতে চেয়ে অধ্যক্ষ মো. শাহ আলমের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার পাড়ায়, আমার সমাজে সবাই আমার আত্নীয়-স্বজন। নির্বাচনে তারা যদি আমার বিপক্ষে অবস্থান নেয়, তাহলে তারা মারা গেলে তাদের কবরস্থানে কবর দিতে জায়গা দেওয়া হবে না। মসজিদেও নামাজ পড়তে দেওয়া হবে না।

তিনি আরো বলেন, পাড়ার মসজিদ এবং কবরস্থান আমার ব্যক্তিগত সম্পত্তিতে করা হয়েছে। আমার বিরোধিতা যারা করবে তাদের স্থান আমার সম্পত্তির ওপর করা কবরস্থান কিংবা মসজিদে হবে না।

বলরাম/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm