চলন্ত বাস থেকে ফেলে শিক্ষককে হত্যাচেষ্টা—র‌্যাবের জালে চালক-হেলপার

নগরে বাড়তি ভাড়া আদায়ের প্রতিবাদ করায় এক স্কুলশিক্ষককে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে হত্যাচেষ্টায় অভিযুক্ত তিন আসামিকে আটক করেছে র‌্যাব-৭।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) ফ্লাইট লেফট্যানেন্ট নিয়াজ মোহাম্মদ চপল।

আটকরা হলেন- নোয়াখালী জেলার চাটখিল থানার বৈখন্ডপুর এলাকার মৃত রুহুল আমিনের ছেলে বাস হেলপার মো. হোসেন (২৫), চট্টগ্রাম জেলার হাটহাজারী থানার খিল্লাপাড়ার মো. নুরুল হকের ছেলে বাস চালক মো. লিটন (৩২), ও ফেনী জেলার দাগনভূইয়া থানা এলাকার মৃত আব্দুল হালিম মিন্টুর ছেলে মো. মাহিন (১৩)।

আরও পড়ুন: ‘১০ যুবকের কাণ্ড’ চলন্ত বাসে তরুণীকে একের পর এক ধর্ষণ

ফ্লাইট লেফট্যানেন্ট নিয়াজ মোহাম্মদ চপল জানান, শিক্ষক হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি বাস হেলপার মাহিনকে বায়েজিদ বোস্তামি এলাকা থেকে আটক করা হয়। এরপর তার দেওয়া তথ্যে বাসের চালক লিটনকে শান্তিনগর থেকে এবং মামলার প্রধান আসামি হোসেনকে মোহাম্মদনগর থেকে আটক করা হয়। আটকরা সবাই মাদকাসক্ত।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার (২৭ নভেম্বর) বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের প্রতিবাদ করলে পাঁচলাইশ থানার হাবিবুল্লা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রহমত উল্লাহ’র সঙ্গে চালক-হেলপারের কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে বাসটি পুরাতন রেলস্টেশন এলাকায় পৌঁছলে চলন্ত বাস থেকে হেলপার হোসেন তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। পরে তার পায়ের ওপর দিয়ে চলন্ত বাস চালিয়ে গেলে পা থেঁতলে গুরুতর আহত হন তিনি। পরে তাকে উদ্ধার করে নগরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। বর্তমানে তিনি ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এএইচ/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm