চট্টগ্রামে ২ সাংবাদিককে মারধরের ঘটনায় মামলা, ‘লজ্জিত’ বললেন আইনজীবী সমিতির নেতা

চট্টগ্রাম আদালত প্রাঙ্গণে যমুনা টেলিভিশনের দুই সাংবাদিকের ওপর কয়েকজন আইনজীবীর হামলার ঘটনায় কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় সাহেদুল হক (৩৫) ও ইসহাক আহমেদের (৩০) নাম উল্লেখ করে ১০-১২ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়।

বুধবার (১৭ আগস্ট) দিবাগত রাত ১টায় সাংবাদিক আল আমিন সিকদার বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

এর আগে বুধবার দুপুর সাড়ে ৩টায় যমুনা টেলিভিশনের চট্টগ্রাম অফিসের স্টাফ রিপোর্টার আল আমিন সিকদার এবং ক্যামেরাপারসন আসাদুজ্জামান লিমন সংবাদ সংগ্রহের কাজে চট্টগ্রাম আদালত প্রাঙ্গনে যান। এ সময় তাঁরা কয়েকজন আইনজীবীর হামলার শিকার হন। পরে আইনজীবী সমিতির অফিসে নিয়ে তাদের লাঞ্ছিত ও মারধর করা হয়।

এদিকে হামলাকারীদের বিচার দাবিতে বুধবার সন্ধ্যায় তাৎক্ষণিক এক প্রতিবাদ সভা করে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন। এ সভা থেকে হামলায় অংশ নেওয়া ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারের দাবি জানানো হয়।

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন সভাপতি মোহাম্মদ আলী বলেন, আদালত ভবনে সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় বুধবার রাতে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ন্যাক্কারজনক এ হামলার প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার (১৮ আগস্ট) বেলা ১১টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সাংবাদিকের ওপর হামলায় জড়িত আইনজীবীদের সনদ বাতিল ও শাস্তির দাবিতে ধারাবাহিক কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

Yakub Group

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এএইচএম জিয়া উদ্দিন বলেন, সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় আমরা লজ্জিত। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে সমিতির নিয়ম অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে।

কোতয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির বলেন, আদালত প্রাঙ্গণে দুই সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় বুধবার রাতে মামলা হয়েছে। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে দেখছি।

নেজাম/এসআই

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm