চট্টগ্রামে ২ পাকিস্তানির তাণ্ডবে ঢাকাকে উড়িয়ে দিল কুমিল্লা

আগের ম্যাচে অর্ধশতক করা দাপুটে ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাস বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) চট্টগ্রাম পর্বের শেষ ম্যাচে ব্যাট করতে নেমে আউট শূন্য রানে। তবে লিটনের দ্রুত ফেরার প্রভাব পড়তে দেননি দুপাকিস্তানি ব্যাটসম্যান রিজওয়ান ও খুশদিল শাহ। এ দুজন মিলে করেন ১১৯ রানের দুর্দান্ত এক পার্টনারশিপ।

২৪ বলে ৬৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন খুশদিল। রিজওয়ান করেন ৪৭ বলে ৫৫ রানের অপরাজিত ইনিংস৷ দুজনের অর্ধশতকে ভর করে ৪ উইকেটে ১৮৪ রানের বড় সংগ্রহ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের।

এর আগে দিনের শুরুর ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় ঢাকা ডমিনেটর্স৷ বোলিং করতে নেমে তেমন সুবিধা করতে পারেনি ডমিনেটর্সের পেসাররা। সফল বোলার তাসকিন ৪ ওভার বল করে এক উইকেটে ২৬ রান দেন। ১২ দশমিক ৫৭ ইকোনমিতে ৪ ওভার বল করে ৫১ রান খরচায় উইকেটশূন্য ছিলেন আফগান বোলার আমির হামজা। ঢাকা ডমিনেটর্সের হয়ে বাকি তিনটি উইকেট তুলে নেন পাকিস্তানি বোলার মো. ইমরান, নাসির হোসেন ও সৌম্য সরকার।

এদিকে ১৮৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করেতে নেমে শুরু থেকেই কুমিল্লার বোলারদের বোলিং তোপে পড়েন ঢাকার ব্যাটসম্যানরা। বড় সংগ্রহ তাড়া করতে নেমে শুরুতেই উইকেট বিলিয়ে দেন সৌম্য সরকার। আস্থার প্রতিদান দিতে পারেননি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ খেলোয়াড় রবিন দাশ। আগের ম্যাচে রানের খাতা না খোলা রবিন এ ম্যাচেও ফেরেন শূন্য রানে।

পাকিস্তানি ডানহাতি ব্যাটসম্যান আহমেদ শেহজাদ ১৭ বলে ১৯ রান করে ফেরেন। শেহজাদ ফিরে গেলেও দলের হাল ধরেন নাসির হোসেন আর মিঠুন। মোসাদ্দেকের ওভারে ইমরুল কায়েসকে ক্যাচ দিয়ে মিঠুন ৩৪ বলে ৩৬ করে ফিরে গেলে নাসির ছাড়া আর কেউ ভালো ইনিংস গড়তে পারেনি।

Yakub Group

৪৫ বলে ৬৪ রানের নাসিরের ইনিংসটি শেষ পর্যন্ত পরাজয়ের ব্যবধান কমায়। নির্ধারিত ২০ ওভারে চার উইকেটে ১৫১ রানে থামে ঢাকা ডমিনেটর্স। ৩৩ রানে সহজ জয় তুলে নেয় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

ম্যাচ শেষে প্লেয়ার অব দ্যা ম্যাচ পুরস্কার পান পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান খুশদিল শাহ । বিপিএলে ৫ ম্যাচ খেলে এক জয়ে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে ঢাকা ডমিনেটর্স।

অন্যদিকে ছয় ম্যাচে ৩ জয় ৩ হারে পয়েন্ট টেবিলের মাঝামাঝিতে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

এআইটি/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm