চট্টগ্রামে স্ত্রী—সন্তানসহ করোনার কবলে সিভিল সার্জন

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. মো. ইলিয়াছ চৌধুরী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। একইসঙ্গে তাঁর স্ত্রী, সন্তান, এমনকি গাড়ির ড্রাইভারও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রামে এন্টিজেন টেস্টসহ ৯টি ল্যাবে গত ২৪ ঘন্টায় ৪৬২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. মো. ইলিয়াছ চৌধুরী ও তাঁর পরিবারের সদস্যসহ ৪০ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়।

যোগাযোগ করা হলে সিভিল সার্জন ডা. মো. ইলিয়াছ চৌধুরী আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আমার গত শনিবার জ্বর ছিল। পরে অনেকটা স্বাভাবিক হয়ে আসে। এরপর আমার ছেলের জ্বর হলে তাকে করোনা টেস্ট করি। টেস্টে তার পজিটিভ এলে পরিবারের সবাই কোভিড টেস্ট করাই। এতে কেবল আমার মেয়ে ছাড়া গাড়ির ডাইভারসহ পরিবারের ৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়। আলহামদুলিল্লাহ আমি শারীরিকভাবে সুস্থ আছি। করোনার লক্ষণগুলো তেমন নেই। আমার পরিবারসহ আক্রান্ত সকলের জন্য দোয়া করবেন।

আরও পড়ুন: জেলা প্রশাসনের কনসার্ট, শনিবার সড়ক ব্যবহারে নতুন নিয়ম সিএমপির

তিনি বলেন, বর্তমানে অধিকাংশ মানুষের জ্বরের উপশম দেখা দিচ্ছে। তাদের করোনা পরীক্ষা করা দরকার। পরীক্ষা করলে করোনায় আক্রান্ত কি-না তা নিশ্চিত হওয়া যাবে। অন্যথায় পরীক্ষা ছাড়া উপশম নিয়ে সবার সাথে মিশলে এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব আরো ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করতে পারে।

Yakub Group

যেমন আমার যখন জ্বরসহ করোনার কিছু লক্ষণ দেখা গিয়েছিল তখন আমি অফিসে সারাক্ষণ মাস্ক ব্যবহার করেছি। এছাড়া সংক্রমণ রুখতে সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেছি। ফলে আমার স্বপরিবারে করোনাক্রান্তের পর অফিসের বাকি সবার করোনা টেস্ট করা হয়। তাদের নেগেটিভ এসেছে— যোগ করেন সিভিল সার্জন ডা. মো. ইলিয়াছ চৌধুরী।

জেএন/এসআই

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm