চট্টগ্রামে ‘যুবলীগ নেতার’ রোগীসেবার অটোরিকশায় রোগী নেই—চড়ছে গরু

করোনা রোগীদের সেবা দেওয়ার কথা ছিল অটোরিকশাটির। কিন্তু রোগী নয়, সেই অটোরিকশায় এখন চড়ছে গরু। চট্টগ্রাম নগর ‘যুবলীগ নেতার’ করোনা রোগীর অটোরিকশায় গরু পরিবহনের ভিডিওটি ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

‘যুবলীগ নেতা’ মো. ফসিউল আলম রিয়াদ করোনা রোগীর জন্য চালু করেন অটোরিকশা সার্ভিস। অন্তত ২৮টি অটোরিকশা প্রতিদিন ব্যানার ঝুলিয়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে শহরে।

ব্যানারে ফসিউল আলম রিয়াদের ছবির সঙ্গে রয়েছে নগর আওয়ামী লীগ সহসভাপতি ও সিঅ্যান্ডএফ মালিক সংগঠনের নেতা আলতাফ হোসেন বাচ্চুর ছবি। আলতাফ হোসেন বাচ্চুর অনুসারী হিসেবে পরিচিত রিয়াদ।

তবে নগর যুবলীগের খাতায় রিয়াদের কোনো নাম নেই বলে জানা গেছে। তবু নিজেকে যুবলীগ নেতা পরিচয়ে ব্যানার লাগিয়ে রাজপথে অটোরিকশা নামিয়েছেন করোনা রোগীর সেবার নামে। আর ব্যানার লাগানো সেই অটোরিকশায় রোগীর বদলে চড়ছে গরু।

কয়েকজনের অভিযোগ, ‘মানবিক’ এ উদ্যোগ এখন প্রশ্নের মুখে পড়েছে। এসব অটোরিকশা রোগী বহনের অজুহাত দেখিয়ে টাকার বিনিময়ে সাধারণ ‘যাত্রী’ বহন করছে। বিনামূল্যে রোগী বহনের জন্য এ সেবা চালু করা হলেও চালকেরা নানা বাহানায় রোগীর স্বজনদের কাছ থেকে টাকা আদায় করেন।

এদিকে এবার রোগী বহনের অটোরিকশায় চড়ছে গরু! মো. মনিরুল ইসলাম নামের এই চালককে কোতোয়ালি থানা এলাকায় অটোরিকশা গরু পরিবহন করতে দেখা গেছে। ভিডিওতে দেখা গেছে, ভাড়া ঠিক হওয়ার পর কয়েকজন লোক মিলে গরুটিকে ঠেলে তুলছেন অটোরিকশায়। এ ঘটনায় সেবাটি সম্পর্কে মানুষের মাঝে নেতিবাচক ধারণা ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে নগর আওয়ামী যুবলীগ নেতা মো. ফসিউল আলম রিয়াদ আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, করোনাকালে মানবিক কারণে ২৮টি অটোরিকশা দিয়ে বিনামূল্যে করোনা রোগী পরিবহন সেবা চালু করি। চালকের কারণে এ সেবাকে বিতর্কিত হতে দেওয়া হবে  না। বিষয়টি জানার পর আমি দশ মিনিটের মধ্যে চালকের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়েছি।

কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে জানতে চাইলে তা আলোকিত চট্টগ্রামকে নিশ্চিত করতে পারেননি ফসিউল আলম রিয়াদ।

আরবি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm