চট্টগ্রামে করোনা—‘হটস্পট’ হাটহাজারী, সংক্রমণের ‘বিপজ্জনক গতি’ রাউজান-বোয়ালখালীতেও

উত্তর ও দক্ষিণ চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তের সংখ্যা বাড়ছেই। একইসঙ্গে বাড়ছে করোনা রোগীর মৃত্যুও। সর্বশেষ ৭২ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের উপজেলাগুলোর মধ্যে হাটহাজারীতে সর্বোচ্চ ২৯৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া রাউজানে ১৮৮ জনের ও বোয়ালখালীতে ১২৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

শনিবার (৭ আগস্ট) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ২ জন, সাতকানিয়ার ৬ জন, বাঁশখালীর ১০ জন, আনোয়ারার ৭ জন, চন্দনাইশের ৫ জন, পটিয়ার ৩৩ জন, বোয়ালখালীর ৬০ জন, রাঙ্গুনিয়ার ২ জন, রাউজানের ৬৮ জন, ফটিকছড়ির ৩৮ জন, হাটহাজারীর ৯৯ জন, সীতাকুণ্ডের ৩০ জন, মিরসরাইয়ের ৪ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ১ জন।

আরও পড়ুন: চট্টগ্রামের করোনায় ‘ডেলটা’ দাপটের প্রমাণ নতুন গবেষণায়

শুক্রবার (৬ আগস্ট) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ২৬ জন, সাতকানিয়ার ১১ জন, বাঁশখালীর ৩৩ জন, আনোয়ারার ৩৮ জন, চন্দনাইশের ২৪ জন, পটিয়ার ৩ জন, বোয়ালখালীর ১৮ জন, রাঙ্গুনিয়ার ২২ জন, রাউজানের ৫৩ জন, ফটিকছড়ির ৪১ জন, হাটহাজারীর ৮৯ জন, সীতাকুণ্ডের ১৯ জন, মিরসরাইয়ের ১০ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ১৫ জন।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ৬ জন, সাতকানিয়ার ৫৭ জন, বাঁশখালীর ১০ জন, আনোয়ারার ১৩ জন, চন্দনাইশের ৩৮ জন, পটিয়ার ২ জন, বোয়ালখালীর ৫১ জন, রাঙ্গুনিয়ার ৪২ জন, রাউজানের ৬৭ জন, ফটিকছড়ির ২০ জন, হাটহাজারীর ১১১ জন, সীতাকুণ্ডের ১৪ জন, মিরসরাইয়ের ১৭ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ২৮ জন।

প্রসঙ্গত, শনিবার (৭ আগস্ট) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ২ হাজার ৭২৪ নমুনা পরীক্ষায় ৯২৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৫৬৩ জন নগরের এবং ৩৬৫ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

একইসময়ে মারা গেছেন ৮ জন করোনা রোগী। এরমধ্যে নগরের ৩ জন ও উপজেলার ৫ জন।

চট্টগ্রামে এ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৪৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর। অন্যদিকে এখন পর্যন্ত চট্টগ্রামের মোট ৮৯ হাজার ৫৮৮ নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।

জেডএইচ

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm