চট্টগ্রামের ৩ স্পটে ছুটছে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা

চট্টগ্রামের তিন স্পটে ছুটছে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা। মূলত করোনার টিকা দিতেই ওই তিন স্পট জড়ো হচ্ছে শিক্ষার্থীরা।

দেশে করোনা শনাক্তের হার বাড়তে থাকায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনা হয়েছে।

সোমবার (১০ জানুয়ারি) সকাল থেকেই স্কুল ও কলেজে অধ্যয়নরত ১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী ছাত্র-ছাত্রীদের টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়।

স্থানগুলো হচ্ছে— জামালখানের রীমা কমিউনিটি সেন্টার, আগ্রাবাদ এক্সেস রোডের আবদুল্লাহ কমিউনিটি সেন্টার এবং নবাব সিরাজদ্দৌলা রোডের মাছুয়া ঝর্ণার সামনে হল সেভেন ইলেভেন।

আরও পড়ুন : চট্টগ্রামে করোনা ছুটছেই, নগরেই সেঞ্চুরি

সরেজমিন রীমা কমিউনিটি সেন্টারে দেখা যায়, সকাল থেকে ভিড় বাড়তে থাকে শিক্ষার্থীদের। টিকা প্রদানকারী কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কয়েকটি স্টলে ভাগ হয়ে শিক্ষার্থীদের টিকা দিচ্ছেন। অনেক শিক্ষার্থীর হাতে দেখা গেছে টিকা প্রদান কার্ড৷ আবার অনেকে কার্ড ছাড়াও এসেছে টিকা দিতে।

করোনা

এদিকে বেলা ১২টায় হল সেভেন ইলেভেনের সামনেও ছিল শিক্ষার্থীদের ভিড়। টিকা নিতে হলের সামনে রাস্তায়ও শিক্ষার্থীদের ঢল নামে।

এর আগে তিন স্থানের নাম উল্লেখ করে রোববার চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. ইলিয়াছ চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।

তিন স্থানে দায়িত্ব পালন করবেন যারা

রীমা কমিউনিটি সেন্টার : লোহাগাড়া, সাতকানিয়া, বাঁশখালী, চন্দনাইশ, পটিয়া ও কর্ণফুলী উপজেলার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা করোনার টিকা দেওয়ার দায়িত্ব পালন করবেন। এখানে স্বাস্থ্য পরিদর্শকের দায়িত্বে রয়েছেন পরিতোষ বড়ুয়া।

আবদুল্লাহ কমিউনিটি সেন্টার : সন্দ্বীপ, সীতাকুণ্ড, মিরসরাই, হাটহাজারী ও রাউজান উপজেলার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা করোনার টিকা দেওয়ার দায়িত্ব পালন করবেন। স্বাস্থ্য পরিদর্শকের দায়িত্বে রয়েছেন অলক দাশ।

হল সেভেন ইলেভেন : ফটিকছড়ি, বোয়ালখালী, আনোয়ারা, রাঙ্গুনিয়া উপজেলার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা করোনার টিকা দেওয়ার দায়িত্ব পালন করবেন। এখানে স্বাস্থ্য পরিদর্শক নুর আলী।

এর আগে গত ৫ জানুয়ারি মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকে টিকা ছাড়া ১২ বছর ও এর ঊর্ধ্বে কোনো শিক্ষার্থী স্কুলে যেতে পারবে না বলে সিদ্ধান্ত নেয় সরকার। এরপর শিক্ষার্থীর টিকা গ্রহণ নিশ্চিত করতে শনিবার নির্দেশনা দেয় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

১২ থেকে ১৮ বছর বয়সী সব শিক্ষার্থীকে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে টিকা দেওয়ার জন্য ইতোমধ্যে মাউশি অধিদপ্তর থেকে গত ৩০ ডিসেম্বর বিভিন্ন নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয় নির্দেশনায়।

আলোকিত চট্টগ্রাম
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm