অতিরিক্ত ডিআইজি হওয়া চট্টগ্রামের পুলিশ সুপার রশিদুলকে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা

পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে পদোন্নতি পাওয়া চট্টগ্রাম পুলিশ সুপার (এসপি) এসএম রশিদুল হক বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধারা জীবনের মায়া ত্যাগ করে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন বলেই আমরা স্বাধীনতা অর্জন করতে পেরেছি। মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। তাদের নিকট থেকে সংবর্ধনা গ্রহণের বিষয়টি আমার সারাজীবনের জন্য বিরল দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলা ইউনিট কমান্ড আয়োজিত বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শনিবার (১৩ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১১টায় নগরের দুই নম্বর গেইট পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এ আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ইউনিট কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর আহমদ ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ইউনিট কমান্ডার একেএম সরোয়ার কামাল দুলুর নেতৃত্বে বিদায়ী পুলিশ সুপারকে ক্রেস্ট দেওয়া হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসএম রশিদুল হক বলেন, যতদিন বেঁচে থাকব ততদিন মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে নিজেকে নিয়োজিত রাখার পাশাপাশি মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা অন্তরে ধারণ করবো। চাকরি জীবনে যখন যে অবস্থানে থেকেছি মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণে কাজ করেছি, ভবিষ্যতেও করে যাব।

Yakub Group

আরও পড়ুন: নতুন পুলিশ সুপার পেল বৃহত্তর চট্টগ্রামের ৫ জেলা

তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রামে আমার ২ বছর ৭ মাসের চাকরিজীবন। এ সময়ে চট্টগ্রামের সাথে আমার আত্মার সম্পর্ক তৈরি হয়েছে। পুলিশ সুপার হিসেবে চট্টগ্রামে আসার পর থেকে করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হয়েছে। জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ও নির্দেশনায় কাজ করার মাধ্যমে জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অন্যান্য স্থানের তুলনায় সহনীয় পর্যায়ে রয়েছে। এছাড়া মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মুলে চট্টগ্রামবাসী আমাদেরকে সক্রিয়ভাবে সহযোগিতা করেছে।

সভাপতির বক্তব্যে কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর আহমদ বলেন, চট্টগ্রাম জেলার বিদায়ী পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অকৃত্রিম বন্ধু। করোনা পরিস্থিতিতে বিভিন্ন থানার অফিসার ইনচার্জ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহারসামগ্রী মুক্তিযোদ্ধাদের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন। এছাড়া জাতীয় দিবসগুলোতে এসপি মহোদয় মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা প্রদান করেছেন। তাঁর অবদান মুক্তিযোদ্ধারা স্মরণ রাখবেন।

মহানগর মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের সহকারী কমান্ডার সাধন চন্দ্র বিশ্বাসের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) মো. জাহাংগীর, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশন) কবির আহমেদ ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গোয়েন্দা ও শিল্পাঞ্চল) সুজন চন্দ্র সরকার।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সহকারী কমান্ডার ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা মো. খোরশেদ আলম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সহকারী কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা একেএম আলাউদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা মো. বোরহান উদ্দিন, মো. নাসির উদ্দিন, দিলীপ কান্তি দাশ, মো. একরামুল হক, ক্যাপ্টেইন মো. হারুন, রেদোয়ানুল হক, আর্ন্তজাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের অন্যতম সাক্ষী কাজী নুরুল আবছার, খুলশী থানা কমান্ডার মো. ইউছুফ, সৈয়দ আহমদ ও মুক্তিযোদ্ধা আজিজুল হক চৌধুরী।

জেএন/এসআর

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm