চকরিয়ায় নির্বাচনি সহিংসতা—দুই কাউন্সিলর সমর্থকদের মামলা-পাল্টা মামলা

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পৌরসভা নির্বাচনে দুই কাউন্সিলর সমর্থকদের মধ্যে হামলা ও গোলাগুলির ঘটনায় মামলা-পাল্টা মামলা দায়ের হয়েছে।

শুক্রবার (৮ অক্টোবর) রাতে থানায় মামলা দুটি দায়ের হয়।

নবনির্বাচিত কাউন্সিলর সাইফুল ইসলামের সমর্থক শামসুল ইসলাম বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ১৩ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে মামলা দায়ের করেন।

অপরদিকে সাবেক কাউন্সিলর রেজাউল করিমের সমর্থক ছাবের আহমদ বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ২০০ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে পাল্টা মামলা দায়ের করেন।

আরও পড়ুন : গোলাগুলিতেই চকরিয়ায় নির্বাচন, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় আহত ১২

চকরিয়া থানার সেকেন্ড অফিসার রাজীব সরকার দুপক্ষের এজাহারের ভিত্তিতে বলেন, গত বুধবার রাতে পৌর শহরের জনতা মার্কেট এলাকায় দুই কাউন্সিলর সমর্থকদের মধ্যে হামলা, ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এতে দুপক্ষের লোকজন গুরুতর আহত হন। পরে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশ ফোর্স গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জুয়েল ইসলাম বলেন, দুই কাউন্সিলরের পক্ষ থেকে থানায় এজাহার দেওয়া হয়। পরে এজাহারটি তদন্ত করে মামলা দায়ের হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের ধরতে পুলিশ মাঠে কাজ করছে।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পুরাতন জনতা মার্কেট এলাকায় চকরিয়া পৌরসভার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বর্তমান কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম ও সাবেক কাউন্সিলর রেজাউল করিমের সমর্থকদের মধ্যে হামলা, গোলাগুলি ও ইট-পাটকেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে। এ সময় ২ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগ সভাপতি সাজ্জাদসহ উভয়পক্ষের ১২ জন আহত হন। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় একজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এছাড়া সাইফুল ইসলাম নামের একজনকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

মুকুল/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm