চকরিয়ায় কাঠ পাচারকারীর গুলিবিদ্ধ লাশ, বনকর্মী আহত

কক্সবাজারের চকরিয়ায় শহিদুল ইসলাম (১৯) নামে যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার (১ আগস্ট) ভোররাতে উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের সামাজিক বনায়নের প্লট থেকে তার লাশটি উদ্ধার করা হয়। নিহত শহিদুল লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের ফকিরা খোলা গ্রামের নুরুল আমিনের ছেলে।

আরও পড়ুন : রাজস্থলীর গভীর জঙ্গলে সশন্ত্র সংঘাতে ৩ লাশ

জানা গেছে, সামাজিক বনায়নের পাহারাদার রাত্রিকালীন ডিউটি করার সময় শহিদুলের গুলিবিদ্ধ লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়দের জানান।

Yakub Group

পরে স্থানীয়দের থেকে খবর পেয়ে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি শেষে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। তবে, এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জন উঠেছে শহিদুল ইসলাম কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের ফুলছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তাদের গুলিতে নিহত হয়েছে।

এ বিষয়ে বন বিভাগের ফুলছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা ফারুক আহমদ বাবর বলেন, রোববার রাতে শহিদুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল কাঠ পাচারকারী বনের কাঠ লুট করে নিয়ে যাচ্ছে বলে খবর আসে। এরপর আমরা ঘটনাস্থলে গেলে পাচারকারীরা আমাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। আমরাও আত্মরক্ষার্থে তিন রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ি। তিনি আরও বলেন, এ সময় কাঠ পাচারকারীদের দা’র কোপে আমাদের এক বনকর্মী গুরুতর আহত হন। তিনি বর্তমানে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনায় থানায় একটি এজাহার জমা দিয়েছি।

চকরিয়া থানার ওসি চন্দন কুমার চক্রবর্তী বলেন, নিহত শহিদুল ইসলামের পিটের বাম হাতের সামান্য নিচের দিকে দু্টি গুলির চিহৃ রয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

বন বিভাগের কর্মকর্তাদের গুলিতে শহিদুল ইসলাম নিহতের বিষয়ে জানতে চাইলে ওসি বলেন, কে গুলি করেছে তা তদন্তাধীন বিষয়। এই মুহূর্তে কিছুই বলতে পারছি না।

এমকেডি/এসআর 

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm