সীতাকুণ্ডে আঁধার নামতেই ব্যবসায়িক পার্টনাররা কুপিয়ে খুন করল যুবককে

সীতাকুণ্ডে মো. ইউসুফ খান (৩৫) নামের এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। তবে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যায়নি।

রোববার (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যা পৌনে ৭টার দিকে পৌরসভার নুনাছড়া বটতল পেট্টোল পাম্প সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইউসুফ খান পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের নুনাছড়া গ্রামের বাসিন্দা মো. মদিন উল্লাহর ছেলে।

আরও পড়ুন : চট্টগ্রামে ৯৮ কেজির স্ত্রী হাঁটুর চাপ দিয়ে ‘খুন’ করল স্বামীকে

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নুনাছড়া গ্রামের যুবলীগ কর্মী ইউসুফ খান এলাকার কিছু যুবকের সঙ্গে যৌথভাবে মাটি বিক্রি ও ইট-বালুর ব্যবসা করতেন। আজ সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বটতল এলাকার একটি হোটেলে ইউসুফের সঙ্গে তার ব্যবসায়িক পার্টনারদের বাকবিতণ্ডা হয়। বাকবিতণ্ডার একপর্য়ায়ে কিছু যুবক তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে চলে যায়।

Yakub Group

সন্ধ্যা ৭টার দিকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে সীতাকুণ্ড উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নুর উদ্দিন রাশেদ বলেন, আজ সন্ধ্যা ৭টার দিকে ইউসুফ খান নামের এক যুবককে হাসপাতালে নিয়ে আসার পর ডা. আছরার উদ্দিন তাকে মৃত ঘোষণা করেন। লাশের শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে।

কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন বলেন, ইউসুফ যুবলীগের কর্মী ছিলেন। তিনি ইট-বালুর ব্যবসা করতেন। এলাকার কিছু যুবকও তার সঙ্গে এসব ব্যবসায় জড়িত ছিলেন। জানতে পেরেছি, আজ সন্ধ্যায় ব্যবসায়িক পার্টনাররা তাকে কুপিয়েছে।

জানতে চাইলে সীতাকুণ্ড উপজেলা যুবলীগ সভাপতি মো. শাহাজাহান বলেন, স্থানীয়ভাবে জানতে পেরেছি এটি ব্যবসায়িক দ্বন্দ্ব। ইউসুফ যুবলীগ সমর্থক ছিলেন। কিন্তু তার দলীয় পদ ছিল না।

যোগাযোগ করা হলে সীতাকুণ্ড থানার ওসি তোফায়েল উদ্দিন বলেন, প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি ইউসুফ যাদের সঙ্গে সবসময় মেলামেশা করতেন তারাই তাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থাসহ আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এসএস/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm