খড়ের গাদার ভেতর মিলল চুরির ৪০ বস্তা ধান

পটিয়ায় গুদাম থেকে ৪০ বস্তা ধান চুরির অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয় রুবেল নাথ (২৮) নামে এক যুবককে। এরপর তাঁর দেওয়ার তথ্যে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে একটি ঘর ও খড়ের গাদার ভেতর থেকে চুরি যাওয়া দেড় টন ধান উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) রাত ৯টা থেকে ভোর ৬টার মধ্যে পটিয়া উপজেলার ৮ নম্বর কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে চুরির এ ঘটনা ঘটে। শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) ভোরে মহিরা ক্ষেত্র মহাজন প্রকাশ লিটন মাস্টার বাড়ি এলাকা থেকে রুবেলকে গ্রেপ্তার করা হয়।

রুবেল নাথ একই ইউনিয়নের রনজিত নাথের ছেলে। তিনি জানান, কাঁধে বোঝাই করে তিনি ৪০ বস্তা ধান চুরি করেন। তবে এক রাতে এত ধান চুরি করা একজনের পক্ষে সম্ভব নয় বলে ধারণা পুলিশের। ঘটনা তদন্তে পাঁচদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে গ্রেপ্তার আসামির বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন : চুরির টাকায় মোটরসাইকেল কিনেছিল যুবক

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে কাশিয়াইশ ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে গুদামে তালা লাগিয়ে চলে যান মালিক। পরদিন সকাল ৬টায় এসে দেখেন গুদামের তালা ভাঙা এবং ৪০ বস্তা ধান নেই। পরদিন (বৃহস্পতিবার) গুদামের মালিক সুজিত কান্তি গুপ্ত (৭২) পটিয়া থানায় মামলা করেন।

এ বিষয়ে পটিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জসীম উদ্দীন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, শুক্রবার চুরি হওয়া দেড় টন ধান উদ্ধারসহ একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। চুরি হওয়া গুদাম থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরের একটি ঘর ও খড়ের গাদার নিচ থেকে ধানের বস্তাগুলো উদ্ধার করা হয়।

ওসি আরও বলেন, তিনজন মিলে এসব ধান চুরি করেছে বলে প্রাথমিক তথ্যে নিশ্চিত হওয়া গেছে। বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলমান আছে। গ্রেপ্তার যুবকের পাঁচদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে।

আরএস/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!