বাঙালির কান্নার দিন

আজ ১৫ আগস্ট

আজ ১৫ আগস্ট, বাঙালির কান্নার দিন। বিশ্বের ইতিহাসে কলঙ্কজনক দিন আজ। ১৯৭৫ সালের এই দিনেই খুন করা হয় হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার মহান স্থপতি, বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে সেনাবাহিনীর কিছু বিপথগামী সদস্য ধানমন্ডির ৩২ নম্বরের বাসভবনে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবার হত্যা করে। ইতিহাসের নৃশংসতম হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে তারা কলঙ্কিত করে বাঙালি জাতিকে।
বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যদিয়ে মুক্তিযুদ্ধে অর্জিত বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে থামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল ইতিহাসের ঘৃণিত খুনিরা।

আরও পড়ুন: আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই হবে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলা

বঙ্গবন্ধু ছাড়াও পঁচাত্তরের সেই রাতে তাঁর সহধর্মিণী বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব, তিন ছেলে শেখ কামাল, শেখ জামাল ও শিশুপুত্র শেখ রাসেল, পুত্রবধূ সুলতানা কামাল ও রোজী জামাল, বঙ্গবন্ধুর একমাত্র ভাই শেখ আবু নাসের, বঙ্গবন্ধুর ফোন পেয়ে তাঁর জীবন বাঁচাতে ছুটে আসা কর্নেল জামিল, এসবির কর্মকর্তা সিদ্দিকুর রহমান ও সেনাসদস্য সৈয়দ মাহবুবুল হককে হত্যা করা হয়।

ওই রাতেই বিপথগামী সেনাসদস্যদের আরেকটি দল বঙ্গবন্ধুর ভাগনে যুবলীগ নেতা শেখ ফজলুল হক মনির বাসায় হামলা চালিয়ে তাঁকে এবং তাঁর অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী আরজু মনিকে হত্যা করে। একইসঙ্গে বঙ্গবন্ধুর ভগ্নিপতি আবদুর রব সেরনিয়াবাতের বাসায় হামলা চালিয়ে তাঁকে ও তাঁর মেয়ে বেবি, ছেলে আরিফ, নাতি সুকান্ত বাবু, তাঁর বড় ভাইয়ের ছেলে সজীব এবং আবদুল নঈম খান নামে এক আত্মীয়কে হত্যা করে।

ওইসময় দুই বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে অবস্থান করায় প্রাণে বেঁচে যান।

আলোকিত চট্টগ্রাম
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm