করোনা—উত্তর চট্টগ্রামের ‘আতঙ্ক’ দক্ষিণেও, ‘নতুন’ হটস্পট ২ উপজেলা

উত্তর চট্টগ্রামে সাম্প্রতিক সময়ে করোনা শনাক্তের সংখ্যা বাড়ছে উদ্বেগজনক হারে। সেদিক থেকে দক্ষিণ চট্টগ্রামে শনাক্তের সংখ্যা ছিল তুলনামূলক কম। তবে সে স্বস্তি টেকেনি বেশিদিন। গত কয়েকদিনে উত্তর চট্টগ্রামের সঙ্গে রীতিমতো পাল্লা দিয়ে দক্ষিণ চট্টগ্রামেও বেড়েছে শনাক্ত।

সর্বশেষ মঙ্গলবার দক্ষিণ চট্টগ্রামের সাত উপজেলায় ২৩২ জন ও উত্তর চট্টগ্রামের সাত উপজেলায় ২৪৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

এদিকে দক্ষিণ চট্টগ্রামের দুই উপজেলা, পটিয়া ও বোয়ালখালীতে এখন প্রতিদিন বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। সর্বশেষ তিন দিনে পটিয়ায় ১৩৬ জন ও বোয়ালখালীতে ১৪০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন: করোনা : শনাক্ত-মৃত্যুতে স্মরণকালের রেকর্ড গড়ল চট্টগ্রাম

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ৩ হাজার ৩৮৯ নমুনা পরীক্ষায় ১ হাজার ৩১০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ৮৩৩ জন নগরের এবং ৪৭৭ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা। একইসময়ে মারা গেছেন ১৮ জন করোনা রোগী। এরমধ্যে নগরের ৭ জন ও উপজেলার ১১ জন।

এদিন চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ চট্টগ্রামের করোনা শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ২ জন, সাতকানিয়ার ১৮ জন, বাঁশখালীর ২১ জন, আনোয়ারার ৬৭ জন, চন্দনাইশের ২ জন, পটিয়ার ৫৭ জন ও বোয়ালখালীর বাসিন্দা রয়েছেন ৬৫ জন।

অন্যদিকে উত্তর চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার ৪৪ জন, রাউজানের ৫৪ জন, ফটিকছড়ির ৩০ জন, হাটহাজারীর ৫৯ জন, সীতাকুণ্ডের ২৩ জন, মিরসরাইয়ের ১২ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ২৩ জন।

এরআগে রোববার (২৫ জুলাই) চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তদের মধ্যে দক্ষিণ চট্টগ্রামের লোহাগাড়ার ৩ জন, সাতকানিয়ার ৩ জন, বাঁশখালীর ২০ জন, আনোয়ারার ২৮ জন, চন্দনাইশের ২ জন, পটিয়ার ৩৬ জন এবং বোয়ালখালীর বাসিন্দা রয়েছেন ৩৭ জন।

অন্যদিকে উত্তর চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার ৩৮ জন, রাউজানের ৪০ জন, ফটিকছড়ির ৫ জন, হাটহাজারীর ৬৬ জন, সীতাকুণ্ডের ১৯ জন, মিরসরাইয়ের ১২ জন এবং সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ২৩ জন।

সোমবার (২৬ জুলাই) চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় জানায়, আগের ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণ চট্টগ্রামের করোনা শনাক্তদের মধ্যে লোহাগাড়ার ১৬ জন, সাতকানিয়ার ৭ জন, বাঁশখালীর ৯ জন, চন্দনাইশের ৩০ জন, পটিয়ার ৪৩ জন এবং বোয়ালখালীর বাসিন্দা রয়েছেন ৩৮ জন।

অন্যদিকে উত্তর চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ার ৩২ জন, রাউজানের ৪ জন, ফটিকছড়ির ১৪ জন, হাটহাজারীর ১০ জন, সীতাকুণ্ডের ১৭ জন, মিরসরাইয়ের ১২ জন ও সন্দ্বীপের বাসিন্দা রয়েছেন ৩৩ জন।

প্রসঙ্গত, চট্টগ্রামে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৯১৫ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর। অন্যদিকে চট্টগ্রামের মোট ৭৭ হাজার ৫২১ নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।

জেডএইচ
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm