নিবন্ধন ছাড়াই ৮০০ কারাবন্দি পেল করোনার টিকা, জামিনে থাকলেও মিলবে দ্বিতীয় ডোজ

নিবন্ধন ছাড়া কোভিড-১৯ ফাইজার টিকা পেলেন চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের বন্দিরা। কারাগারে থাকা মোট ৭ হাজার ৮০০ বন্দির মধ্যে প্রথম ধাপে ৮০০ বন্দিকে এই টিকা দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) সকাল ১১টায় কারাগারে টিকাদান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর।

আরও পড়ুন: করোনার টিকা—দুর্গম পাহাড়ে শুধুই প্রতীক্ষা

এ সময় তিনি বলেন, কারাগারে বন্দিদের নিবন্ধন ছাড়া বিশেষ ব্যবস্থায় কোভিড-১৯ টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে। চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারের ৭ হাজার ৮০০ কারাবন্দি রয়েছে। এদের মধ্যে প্রথম ধাপে আজ (বৃহস্পতিবার) ৮০০ বন্দিকে করোনার ফাইজার টিকা দেওয়া হয়েছে।

ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর বলেন, বন্দিদের নাম, ঠিকানা, মোবাইল নম্বর এবং যাদের এনআইডি কার্ড আছে এসব তথ্য নিয়ে টিকা দেওয়া হচ্ছে। প্রথম ডোজ টিকা গ্রহণকারীদের স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে একটি কার্ড দেওয়া হচ্ছে। এ কার্ড দিয়ে পরবর্তীতে দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেওয়া যাবে। আর বন্দিদের মধ্যে প্রথম ডোজ গ্রহণকারীরা জামিনে থাকলে তারাও এই কার্ড দিয়ে বাইরে থেকে দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করতে পারবে।

ওমিক্রন প্রস্তুতির বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা ওমিক্রন নিয়ে যতটুকু ভেবেছিলাম, ততোটা নয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত ভয়াবহ কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। আমরা সতর্ক আছি। বিশেষ করে যারা বাইরে থেকে আসছেন তাদের জন্য স্থলবন্দর, বিমানবন্দরে অ্যান্টিজেন টেস্ট চালু করেছি এবং তাদের জন্য ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করেছি।

আরও পড়ুন: করোনার টিকা—ইনজেকশন পুশ ছাড়াই কার্যকর শতভাগ!

জেলা সিভিল সার্জন ডা.মো. ইলিয়াছ চৌধুরীর সভাপতিত্বে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আক্তার চৌধুরী। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন কারাগারের ডিআইজি একেএম ফজলুল হক।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলার মো. তারিকুল ইসলাম, কারা হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. শামীম রেজা, জেলা স্বাস্থ্য তত্ত্বাবধায়ক সুজন বড়ুয়া, চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক অফিসের স্টাফ অফিসার শাহাদাত হোসেন শাকিল।

এএইচ/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm