‘কঠোর লকডাউন’—সোমবার থেকে যা যা বন্ধ, ‘আওতামুক্ত’ যারা

সারাদেশে সোমবার (২৮ জুন) থেকে সাত দিন ‘কঠোর লকডাউন’ ঘোষণা করা হয়েছে। এবারের লকডাউনে জরুরি সেবা ও গণমাধ্যম ছাড়া সরকারি-বেসরকারি সব অফিস, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান, দোকানপাট ও গণপরিবহন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

শুক্রবার (২৫ জুন) রাতে সরকারের প্রধান তথ্য কর্মকর্তা সুরথ কুমার সরকার গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, লকডাউন চলাকালে জরুরি পরিসেবা ছাড়া সব সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ থাকবে।

এদিকে রাতে সরকারের এ সংক্রান্ত এক তথ্য বিবরণীতে বলা হয়, ২৮ জুন সোমবার থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সারাদেশে কঠোর লকডাউন পালন করা হবে। এ সময় জরুরি কারণ ছাড়া কেউ বাড়ির বাইরে বের হতে পারবেন না।

এতে আরও জানানো হয়, এসময় জরুরি পরিসেবা ছাড়া সব সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ থাকবে। জরুরি পণ্যবাহী গাড়ি ছাড়া সব ধরনের যানবাহন চলাচলও বন্ধ থাকবে। তবে গণমাধ্যম লকডাউনের আওতামুক্ত থাকবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, কঠোর লকডাউনের বিষয়ে আরও বিস্তারিত তুলে ধরে শনিবার (২৬ জুন) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হতে পারে।

এর আগে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সারাদেশে কমপক্ষে ১৪ দিন সম্পূর্ণ ‘শাটডাউন’ দেওয়ার সুপারিশ করে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। তবে শাটডাউন নয়, সরকারের পক্ষ থেকে এসেছে কঠোর লকডাউনের ঘোষণা।

জেডএইচ
1 মন্তব্য
  1. [email protected] বলেছেন

    বীজ ভান্ডার সার কীটনাশকের দোকান খোলা রাখা যাবে কি?? গেলেও কতক্ষণ

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm