ওরা ‘ডিবি পুলিশ’ নয়—সীতাকুণ্ডের সংবাদপত্র এজেন্টকে পাওয়া গেল চান্দিনায়

সীতাকুণ্ডে অপহরণের দুদিনের মাথায় কুমিল্লা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে সংবাদপত্র এজেন্ট মো. ইয়াছিনকে। সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) রাত ৯টার দিকে কুমিল্লার চান্দিনা থানা পুলিশের সহযোগিতায় তাঁকে উদ্ধার করা হয়।

তবে এ ঘটনায় জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তাই এখন পর্যন্ত রহস্য উদঘাটন করা যায়নি। কারা তাঁকে তুলে নিয়ে গিয়েছিল, কেনই বা নিয়ে গিয়েছিল, কোনো প্রশ্নেরই উত্তর মিলেনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, সীতাকুণ্ড উপজেলার সোনাইছড়ি ইউনিয়নের মধ্যম সোনাইছড়ি (বারআউলিয়া) গ্রামের সংবাদপত্র এজেন্ট মো. এসএম ইয়াছিনকে (৫৭) রোববার (১২ ডিসেম্বর) সকালে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়য়ে যাওয়া হয়। ঘটনার পর ইয়াছিনের মেঝ ভাই মাস্টার মাহবুবুর রহমান বাদী হয়ে সীতাকুণ্ড মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

আরও পড়ুন: সাতসকালে অফিস থেকে নিয়ে যাওয়া হলো সংবাদপত্র এজেন্টকে, পরনে ডিবির জ্যাকেট

এরপর পুলিশ ডিবিসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ঘটনা অনুসন্ধানে নামেন। তারা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের বিভিন্ন স্থান থেকে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে তদন্ত শুরু করেন। পুলিশ কুমিল্লার চান্দিনায় তাঁর অবস্থানের খবর পেয়ে সেখান থেকে তাঁকে উদ্ধার করেন।

ইয়াছিনের ভাই মাস্টার মাহবুবুর রহমান বলেন, কুমিল্লার চান্দিনা থেকে আমার ভাইকে পুলিশ রাত ৯টার সময় উদ্ধার করেছেন। যোগাযোগ করা হলে সীতাকুণ্ড থানার ওসি মো. আবুল কালাম আজাদ আলোকিত চট্টগ্রামকে জানান, মো. ইয়াছিনেরর সন্ধানে সারাদিন কাজ অব্যাহত ছিল। রাতে কুমিল্লার চান্দিনা এলাকায় তাঁর অবস্থানের সংবাদ পাই।

আরও পড়ুন: সীতাকুণ্ডের সবজি : ভোক্তার হাতে আসতেই যেভাবে দাম হয়ে যায় দ্বিগুণ

চান্দিনা থানা পুলিশের সহযোগিতায় আমরা তাঁকে উদ্ধার করে চান্দিনা থানায় নিয়ে রাখি। এরপর আমাদের সীতাকুণ্ড থানা থেকে একটি টিম তাঁকে আনার জন্য সেখানে রওনা দেন। ইয়াছিন এখন সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন।

কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তাঁর কাছ থেকে জেনে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, ‘সাতসকালে অফিস থেকে নিয়ে যাওয়া হলো সংবাদপত্র এজেন্টকে, পরনে ডিবির জ্যাকেট’ শিরোনামে গত ১৩ ডিসেম্বর (সোমবার) সংবাদ প্রকাশ করে আলোকিত চট্টগ্রাম।

এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm