এক ভাই খুন, অন্য ভাই রক্তাক্ত—অপরাধ মসজিদ-মাদ্রাসার ব্যয়ের হিসাব চাওয়া

হাটহাজারীতে মসজিদ ও মাদ্রাসা পরিচালনার নিয়ন্ত্রণ নিয়ে বিরোধের জেরে হোসাইন এলাহী (৪০) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা।

শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) রাতে উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কালা বাদশাপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহতের ছোট ভাই মোমেন শাহ (৩৫) গুরতর আহত অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

তারা দু’জন কুয়েতপ্রবাসী ছিলেন। করোনায় দেশে এসেছিলেন। তবে শিগগিরই আবার কুয়েতে ফেরারা কথা ছিল তাদের। তারা কালা বাদশাপাড়া এলাকার লতু মিয়ার ছেলে।

আরও পড়ুন : ভাইয়ের হাতে ভাই খুন হাটহাজারীতে, খুনের ছক বিদেশে বসেই

স্থানীয় লোকজন জানায়, কালা বাদশাপাড়া জামে মসজিদ ও তালিমুল কোরআন নুরানী মাদ্রাসা পরিচালনা ও সংস্কারকাজের জন্য আয়-ব্যয়ের হিসাব নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে মসজিদ পরিচালনা কমিটির দুপক্ষের বিরোধ চলছিল। শুক্রবার সন্ধ্যায় দুই ভাইয়ের ওপর অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায় ১০-১৫ জন দুর্বৃত্ত। এ সময় গুলির শব্দও শোনা যায়। হামলায় দুই ভাইকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে দুর্বৃত্তরা।

পরে স্থানীয় লোকজন আহত দুই ভাইকে দ্রুত উদ্ধার করে প্রথমে হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রাতে তাদের চমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু হাসপাতালে আসার পথেই হোসাইন এলাহীর মৃত্যু হয়।

তাদের আরেক ভাই সৌদিপ্রবাসী মু. মহসিন বলেন, মসজিদ ও মাদ্রাসার যাবতীয় খরচে আমাদের পরিবার সহায়তা করে থাকে। খরচের হিসাব চাওয়ায় প্রতিপক্ষের লোকজন আমার দুই ভাইকে কুপিয়েছে। আমরা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, মসজিদ ও মাদ্রাসার আয়-ব্যয় হিসাব নিয়ে বিরোধের জেরে দুই ভাইয়ের ওপর হামলা হয়েছে। এতে একজন নিহত হয়েছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চমেক হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এখনো নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়নি। তবে পুলিশ হত্যায় জড়িতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে।

আলোকিত চট্টগ্রাম
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm