এক ঘরের আগুনে পুড়ল ৯ ঘর

চকরিয়ায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আগুনে পুড়ে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে ৯ বসতঘর। আগুনে আনুমানিক ২০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের।

রোববার (৩ এপ্রিলি) বিকাল সোয়া ৫টার দিকে উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের বাটাখালী ব্রিজসংলগ্ন মাইজপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন: ১৬ রুমের ঘরে হঠাৎ আগুন, এককাপড়ে ঘর ছাড়লেন সবাই

আগুনে ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন- মো. নুরুচ্ছফা, আহমদ হোসেন, মিরাজ, আবদুল হক, মো. আলম, মো. হেলাল, মো. মহিউদ্দিন, জমির ও বশির।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্য মো. নুরুচ্ছফা বলেন, বাড়ির মহিলারা সবাই তখন রান্নাঘরের কাজে ব্যস্ত। এসময় কোনো একটি বাড়ি থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে একইসঙ্গে লাগোয়া ৯ বসতঘরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। আগুনে সবকিছু পুড়ে গেছে।

এ বিষয়ে চকরিয়া ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার মো. সেলিম উদ্দিন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আজ (রোববার) বিকালে খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। আগুনে ৯ জনের বসতঘর পুড়ে গেছে।

আরও পড়ুন: মিরসরাইয়ে মুহূর্তের আগুনে ৭০ লাখ টাকার ক্ষতি

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিকভাবে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে ধারণা করছি। তবে কার বাড়ি থেকে আগুনের সূত্রপাত তা সঠিকভাবে বলতে পারছি না।

সাহারবিল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নবী হোসাইন চৌধুরী জানান, ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে সহায়তা দেওয়া হয়েছে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নির্ণয় করে পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মুকুল/আরবি

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm