সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্রে উত্তপ্ত রাউজান কলেজ—২ শিক্ষক ও কর্মচারীর অপসারণ চান ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা

রাউজান সরকারি কলেজের দুই শিক্ষক ও এক কর্মচারীর অপসারণ চান শিক্ষার্থীরা। এজন্য তারা বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

দুই শিক্ষক হচ্ছেন হবিবুল্লাহ এবং অতিকউল্লাহ। অপরজন কলেজের কর্মচারী এনামুল হক।
তাঁদের বিরুদ্ধে সরকারবিরোধী কর্মকাণ্ড, লাইব্রেরিতে জঙ্গিসংশ্লিষ্ট বই রাখাসহ শিক্ষার্থীদের হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছে।
এদিকে শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করেছে রাউজান কলেজ ও উপজেলা ছাত্রলীগের নেতারা।

বিক্ষোভের পর শিক্ষার্থীরা শিক্ষক-কর্মচারীদের ঘেরাও করে রাখে। এ সময় কলেজের অধ্যক্ষ সেলিম নেওয়াজ চৌধুরী ফোন করে বিষয়টি পৌরসভার মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজকে জানান। পৌরমেয়র ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের দাবির বিষয়ে প্রশাসনকে জানিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া আশ্বাস দেন। পরে তিনি দুই শিক্ষক ও কর্মচারীকে উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যান।

আরও পড়ুন : ‘অনন্য রেকর্ড’— রাউজানে ভোটের আগেই সবাই জয়ী 

Thai Food

কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি আরমান সিকদার ও সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল মাহমুদ অভিযোগ করে বলেন, কলেজের দুই শিক্ষক হবিবুল্লাহ ও অতিকউল্লাহ এবং এক কর্মচারী এনামুল হক সাধারণ শিক্ষার্থীদের হয়রানি করেন। জামায়াত ইসলামীর সঙ্গে সম্পৃক্ততা রেখে সরকারবিরোধী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত তারা। কলেজের লাইব্রেরিতে হেফজাত ইসলাম ও জঙ্গি তৎপরতামূলক বই রেখেছেন তারা। ক্লাসে পাঠদানের সময় সরকারবিরোধী বক্তব্য দেন।

জামাল ইমতিয়াজ নকিব নামের এক ছাত্রীর ভাই শিক্ষকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে বলেন, আমার বোনের সঙ্গে কলেজের ক্লাসরুমে অশোভন আচরণ করেন তারা।

অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্ত বিভাগের প্রভাষক হাবিবউল্লাহ বলেন, আমি আদর্শ শিক্ষক হিসেবে রাউজান সরকারি কলেজে রয়েছি। কেন আমার বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করছে আমি জানি না।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কলেজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির সোহাগ আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আমি শহরে ছিলাম। কলেজের দুই শিক্ষক ও এক কর্মচারীর বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীরা সরকারবিরোধী কর্মকাণ্ড ও অনিয়মের অভিযোগ এনেছে। এছাড়া তাদের অপসারণের দাবিতে বিক্ষোভ করেছে বলে অধ্যক্ষের কাছ থেকে শুনেছি। আগামী রোববার দুই শিক্ষক ও কর্মচারীকে ডাকব এবং শিক্ষার্থীদের অভিযোগ শুনে তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শফিউল/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm