আবারও বিলাসবহুল জাহাজে যাওয়া যাবে সেন্টমার্টিন

চট্টগ্রামের পতেঙ্গা ওয়াটার বাস টার্মিনাল থেকে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে আবারও চালু হচ্ছে বিলাসবহুল ক্রুজশিপ ‘এমভি বেওয়ান’। আগামী ২৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় এটি সেন্টমার্টিনের উদ্দেশে পতেঙ্গা ছেড়ে যাবে। চলতি পর্যটন মৌসুমে চট্টগ্রাম-সেন্টমার্টিনে মধ্যে নিয়মিত চলাচল করবে এ শিপ।

চট্টগ্রাম-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটেও সমুদ্রগামী বিলাসবহুল কোনো জাহাজের যাতায়াত এটাই প্রথম। এরই মধ্যে যাত্রা শুরু করেছে দেশের প্রথম সমুদ্রগামী জাহাজ এমভি কর্ণফুলী এক্সপ্রেস।

আরও পড়ুন: সেন্টমার্টিনে আটকা পড়েছে ৩ শতাধিক পর্যটক

কক্সবাজার শহরের বিমানবন্দর সড়কের বিআইডব্লিউটিএ ঘাট থেকে শনিবার (২০ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৭টায় যাত্রা শুরু করে দুপুর ১টায় সেন্টমার্টিন পৌঁছায় জাহাজটি। দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত সেন্টমার্টিনে বিরতির পর সাড়ে ৩টায় কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে ফের রওনা দেয় বিলাসবহুল এ জাহাজটি।

কর্ণফুলী শিপ বিল্ডার্স লিমিটেড এ জাহাজ দুটি পরিচালনা করছে। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, এমভি কর্ণফুলী এক্সপ্রেসকে নিজস্ব ডকইয়ার্ডে একটি অত্যাধুনিক বিলাসবহুল জাহাজ হিসেবে প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রায় ৫৫ মিটার দৈর্ঘ্যের ও ১১ মিটার প্রস্ত এই নৌযানে মেইন প্রপালেশন ইঞ্জিন-দুটি। আমেরিকার বিখ্যাত কামিন্স ব্র্যান্ডের এই ইঞ্জিনের একেকটির ক্ষমতা প্রায় ৬০০ বিএইচপি।

আরও পড়ুন: চট্টগ্রাম ছাড়ল যুক্তরাজ্যের সেই রাজকীয় যুদ্ধজাহাজ

জাহাজটি ঘণ্টায় প্রায় ১২ নটিক্যাল মাইল গতিতে ছুটতে পারে। ১৭টি ভিআইপি কেবিনের নৌযানটিতে তিন ক্যাটাগরির প্রায় ৫০০ আসন রয়েছে। রয়েছে কনফারেন্স রুম, ডাইনিং স্পেস, সি ভিউ ব্যালকনিসহ বিভিন্ন আধুনিক সুযোগ-সুবিধা। এর চেয়েও অত্যাধুনিক সুবিধা নিয়ে তৈরি কোম্পানির আরেক বিলাসবহুল ক্রুজশিপ ‘এমভি বেওয়ান’।

এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm