দারুল ইরফান রিসার্চ ইনস্টিটিউটের আন্তর্জাতিক আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা—চবিতে মতবিনিময়

দারুল ইরফান রিসার্চ ইনস্টিটিউট আন্তর্জাতিক আলোকচিত্র প্রতিযোগিতা কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। একইসঙ্গে আজ (১৩ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় মতবিনিময়।

এর আগে ৪ জানুয়ারি মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সভায় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন প্রধান পৃষ্ঠপোষক সাজ্জাদানশীন সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভাণ্ডারী। এসময় উপস্থিত ছিলেন আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার পৃষ্ঠপোষক সৈয়দ ইরফানুল হক মাইজভাণ্ডারী, প্রতিযোগিতার সেক্রেটারি শরীফ আহমেদ এবং আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার চেয়ারম্যান শোয়েব ফারুকী।

সভায় প্রধান পৃষ্ঠপোষক সৈয়দ এমদাদুল হক মাইজভাণ্ডারী তাঁর বক্তব্যে সুফীবাদের দর্শন আন্তর্জাতিক অঙ্গনে কীভাবে ছড়িয়ে দেওয়া যায় সেই বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে তুলে ধরেন।

আরও পড়ুন: বিশ্ব দেখবে বাংলাদেশ—সমুদ্রদর্শন আর ঢেউয়ের গর্জনে চলবে আন্তর্জাতিক ম্যাচ

এছাড়া পৃষ্ঠপোষক সৈয়দ ইরফানুল হক মাইজভান্ডারী, শরীফ আহমেদ, ও শোয়েব ফারুকী সুফিবাদ চর্চার বিষয়ে মাইজভাণ্ডার শরীফের সামগ্রিক কর্মকাণ্ডের উপর আলোকপাত করেন।

এই আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার মূল লক্ষ্য সুফীবাদের দর্শন ও আচার অনুষ্ঠানসমূহ বিশ্বব্যাপী প্রচার করা।

এদিকে দারুল ইরফান রিসার্চ ইনস্টিটিউট [DIRI] আয়োজিত আন্তর্জাতিক আলোকচিত্র প্রতিযোগিতাকে স্বীকৃতি দিয়েছে নেদারল্যান্ডভিত্তিক আলোকচিত্র সংস্থা গ্লোবাল ফটোগ্রাফিক ইউনিয়ন, তুরস্ক ভিত্তিক আলোকচিত্র সংস্থা (SSS), বাংলাদেশ ফটোগ্রাফিক সোসাইটি (BPS) এবং বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি।

এ উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে এক মতবিনিময় সভা চবি উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার, উপউপাচার্য প্রফেসর বেনু কুমার দে, কলা অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. মহীবুল আজিজ, প্রফেসর ড. কাযী এসএম খসরুল আলম কুদ্দুসী, কলা অনুষদের সাবেক ডিন প্রফেসর ড. মো. সেকান্দর চৌধুরী, ড. মো. শেখ সাদী ও কাযী মো. সাইফুল আসপিয়া।

প্রতিযোগিতয় চারটি বিষয়টি রয়েছে। ১) প্রকৃতির নির্মলতা/নির্মল প্রকৃতি। ২) বিশ্বব্যাপী সুফী আচার অনুষ্ঠান এবং সুফী কার্যকলাপ। ৩) বিশ্বব্যাপী সুফী মঠ, মাজার, সমাধি ইত্যাদির স্থাপত্য দৃশ্য। ৪) মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফ এবং এখানকার সুফী আচার অনুষ্ঠানাদি।

আরও পড়ুন: আন্তর্জাতিক রসায়ন অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশের ৩ সম্মাননা

প্রতিযোগিতায় ৪৭০০ মার্কিন ডলারের মোট ১৪২টি পুরস্কার রয়েছে। মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফ এবং এখানকার সুফী আচার অনুষ্ঠানাদির উপর শ্রেষ্ঠ ছবির জন্য বিশেষ ট্রফি এবং ১০০০ মার্কিন ডলার দেওয়া হবে। শ্রেষ্ঠ আলোকচিত্রী পাবেন ৫০০ মার্কিন ডলার। এছাড়া রয়েছে ৪টি করে স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ পদক এবং ২৪টি বিশেষ পুরস্কার।

স্বর্ণপদক জয়ী ১৬ জন আলোকচিত্রীর প্রত্যেকে স্বর্ণপদক ছাড়াও আরও ২০০ মার্কিন ডলার পুরষ্কার পাবেন।

সারা বিশ্বের অপেশাদার এবং পেশাদার সব আলোকচিত্রী কোনো এন্ট্রি ফি ছাড়াই এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন। শুধুমাত্র ডিজিটাল মাধ্যমে এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করা যাবে। প্রতিযোগিতার সকল তথ্য www.diriphotosalon.org ওয়েবপেজে পাওয়া যাবে।

আলোকিত চট্টগ্রাম

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm