আনোয়ারায় ইউপি নির্বাচন౼নৌকার মাঝি হতে মরিয়া যারা

আনোয়ারায় আগামী ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হবে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন। পঞ্চম ধাপের এ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক পেতে ইতোমধ্যে ঢাকায় দৌড়ঝাঁপ শুরু করছেন অনেকে।

উপজেলার ১১ ইউনিয়নের ১০টিতে এবার নির্বাচন হবে। তবে মামলা জটিলতার কারণে জুঁইদণ্ডী ইউনিয়নে হবে না নির্বাচন।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) থেকে রাজধানীতে পছন্দের নেতার সম্মতি লাভ এবং দলীয় ফরম সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করছেন মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীরা।

এদিকে তৃণমূলের সম্মতিতে বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে প্রার্থী তালিকা তৈরি করা হয়েছে বলে জানিয়য়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগ।

জানা যায়, গত এক মাস ধরে তৃণমূল পর্যায়ের সম্মতিতে প্রতি ইউনিয়ন থেকে ৩ জন করে প্রার্থী তালিকা তৈরি করে জেলা আওয়ামী লীগের মাধ্যমে কেন্দ্রে জমা  দেওয়া হয়। দলের নির্বাচনি বোর্ড দলীয় মনোনয়ন ফরমের সঙ্গে প্রার্থীদের জীবনবৃত্তান্তসহ জমা দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন। তালিকাভুক্ত ও মনোনয়ন পাওয়ার জন্য প্রার্থীরা সোমবার থেকে নেতাদের সম্মতি পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন।

তবে এ দৌড়ঝাঁপে স্থানীয় অনেক বিতর্কিত, মাদক ব্যবসায়ী এবং জনবিচ্ছিন্ন লোকও রয়েছে বলে জানা গেছে। এদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন মন্তব্যও করেছেন অনেকে।

আরও পড়ুন : ইউপি নির্বাচন−কথার উত্তাপে সংঘর্ষের শঙ্কা

নৌকা পেতে যেসব প্রার্থী দৌড়ঝাঁপে রয়েছেন তাদের মধ্যে আছেন বৈরাগ ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মো. সোলোয়মান, সাবেক চেয়ারম্যান নোয়াব আলী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন।

বারশত ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান এমএ কাইয়ূম শাহ্ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল করিম বাবুল।

রায়পুর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান জানে আলম, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আমিন শরীফ ও উপজেলা শ্রমিক লীগের সহসভাপতি শফিকুর রহমান।

বটতলী ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক এমএ মান্নান চৌধুরী ও সংরক্ষিত ইউপি সদস্য জান্নাতুল ফেরদৌস মুন্নী।

বরুমচড়া ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান শাহাদত হোসেন চৌধুরী, বীর মুক্তিযোদ্ধা শামসুল আলম ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক আবুল বশর।

বারখাইন ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান হাসনাইন জলিল শাকিল, আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রয়াত আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর সাবেক একান্ত সচিব বোরহান উদ্দিন চৌধুরী মুরাদ, দক্ষিণ জেলা তাঁতী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আজিজুল হক আজিজ, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি খোরশেদ আলম ও আওয়ামী লীগ নেতা জয়নাল আবদীন হেলাল।

আনোয়ারা সদর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান অসীম কুমার দেব, সাবেক চেয়ারম্যান সুশীল ধর, মো. ছৈয়দ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ভিপি জাফর উদ্দিন চৌধুরী, আওয়ামী লীগ নেতা স্বপন ধর ও  দিদারুল আলম টিপু।

চাতরী ইউনিয়ন বর্তমান চেয়ারম্যান মো. ইয়াছিন হিরু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আফতাব উদ্দিন চৌধুরী সোহেল ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুচ্ছাফা।

পরৈকোড়া ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ চৌধুরী আশরাফ, সাবেক দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ নেতা এমএ ছালাম, আওয়ামী লীগ নেতা নাজিম উদ্দিন সুজন, এম নুরুল হুদা ও মো. আলী।

হাইলধর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ মালেক ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি দিদারুল আলম।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক এমএ মান্নান চৌধুরী বলেন, আমাদের অভিভাবক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি। তাঁর নির্দেশনায় তৃণমূল পর্যায়ের মতামত নিয়ে ১০ ইউনিয়নে দলের প্রার্থীদের একটি তালিকা তৈরি করা হয়েছে। দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের মাধ্যমে বৃহস্পতিবার কেন্দ্রে তালিকা জমা দেওয়া হবে। দল যাকে মনোনয়ন দেবে সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে তাঁর পক্ষে কাজ করব।

ইমরান/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm