জামায়াত নেতার ‘ইশারায়’ আগুন জ্বলল নৌকার অফিসে

ফটিকছড়ির ভূজপুরে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী জুলফিকার আলী ভুট্টোর নির্বাচনি কার্যালয় আগুনে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে।

রোববার (৭ নভেম্বর) গভীর রাতে হারুয়ালছড়ি ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সুজানগরে এ ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন: ২ ঘণ্টার আগুনে পুড়ল হালিশহর কাঁচাবাজারের শতাধিক দোকান

এদিকে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় জামায়াতের চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ভূজপুর ট্র্যাজেডি মামলার এক নম্বর আসামি ইকবাল হোসেন চৌধুরীকে দায়ী করেছেন জুলফিকার আলী ভুট্টো।

চেয়ারম্যান প্রার্থী ভুট্টো আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, রোববার রাতে নির্বাচনি প্রচারণা শেষে কর্মীরা বাড়ি চলে যায়। কার্যালয়ে কেউ না থাকার সুযোগে অগ্নিসংযোগ করা হয়। জামায়াত প্রার্থী ইকবাল হোসেন চৌধুরী ও স্থানীয় সাংসদ নজিবুল বশর মাইজভাণ্ডারীর ইন্ধনে দুর্বৃত্তরা আমার নির্বাচনি কার্যালয়ে আগুন দিয়েছে।

Thai Food

তিনি আরো বলেন, আমার কর্মী-সমর্থকদের ভয়-ভীতি দেখানোর জন্য মূলত নির্বাচনি কার্যালয়ে আগুন দেওয়া হয়েছে। আমি একটি নির্বাচনি মিটিংয়ে আছি। মিটিং শেষে থানায় অভিযোগ দায়ের করব।

আরও পড়ুন: রাতের আঁধারে ভাঙচুর করে আগুন দেওয়া হলো নৌকার প্রচারকেন্দ্রে

যোগাযোগ করা হলে ভূজপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজহাব উদ্দিন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, অগ্নিসংযোগের ঘটনায় নির্বাচনি কার্যালয় পরিদর্শন করে দেখেছি। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, জামায়াত প্রার্থী ইকবাল হোসেন চৌধুরী ফটিকছড়ির ভূজপুর ট্র্যাজেডি মামলার এক নম্বর আসামি। তাঁর বিরুদ্ধে সহিংসতা, জ্বালাও-পোড়াওসহ ১৫টির বেশি মামলা রয়েছে।

এএইচ/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm