অস্ত্র বিক্রি করতে এসে ধরা দুই যুবক, পালিয়ে গেল ২ জন

দেশে তৈরি অবৈধ অস্ত্র বিক্রির সময় দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে কক্সবাজারের পেকুয়া থানা পুলিশ। এসময় পুলিশির উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় আরও দুই যুবক। গ্রেপ্তার হওয়া দুই যুবক হলেন- মো. মিজানুর রহমান (২১) ও মো. মোর্শেদ (১৯)।

রোববার (২১ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার চৌমুহনী কাঁচাবাজার এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ ঘটনায় চারজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলার আসামিরা হলেন- পেকুয়া উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের পাহাড়িয়াখালী এলাকার জয়নাল আবেদীনের ছেলে মো. মিজানুর রহমান (২১), শিলখালী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের কাচারীমোড়া এলাকার আবুল বশরের ছেলে মো. মোর্শেদ (১৯), চকরিয়া পৌরসভার ৫ নং ওয়ার্ডের করাইয়াঘোনার বশির আহমদের ছেলে মো. সোহাগ (২৮) এবং বাঁশখালী উপজেলার পুইছড়ী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের কোনারপাড়ার মৃত আলী আহমদের ছেলে আহম্মদুর রহমান (২৮)।

আরও পড়ুন: ৪ ঘণ্টা গোলাগুলির পর র‌্যাবের কব্জায় রোহিঙ্গাদের অস্ত্র কারখানা

পেকুয়া থানার এসআই মোজাম্মেদল হোসেন বলেন, রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পেকুয়ার চৌমুহনী কাঁচাবাজার এলাকায় দেশীয় তৈরি অবৈধ অস্ত্র বেচেকেনা হচ্ছে বলে খবর আসে। এ খবর পেয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযানে যায়।

এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুই যুবক পালিয়ে গেলেও অপর দুই যুবককে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। পরে তাদের তল্লাশি করলে পেন্টের কোমর থেকে একটি দেশীয় তৈরি অস্ত্র (এলজি) উদ্ধার করা হয়।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, একটি দেশীয় তৈরি অস্ত্রসহ দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছি। এ ঘটনায় চারজনের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পলাতক অন্য দুই আসামিকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। গ্রেপ্তার দুই যুবককে সোমবার সকালে চকরিয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm