পাহাড়ে অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছে সন্ত্রাসীরা, সেনাক্যাম্প বসানোর দাবি সাংসদের

পার্বত্য চট্টগ্রামে সেনাবাহিনীর অস্থায়ী ক্যাম্প বসানোর দাবি জানিয়েছেন রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, স্থানীয় সংসদ সদস্য ও খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি দীপংকর তালুকদার।

বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) বিকেলে আসন্ন ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ পার্বত্য জেলার শাখার সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি জানান।

আরও পড়ুন: ‘যৌথবাহিনীর ফাঁদ’ অস্ত্র—গুলিসহ পাহাড়ের ইউপিডিএফ কর্মী আটক

দীপংকর তালুকদার বলেন, দ্বিতীয় ধাপে আগামী ১১ নভেম্বর যেসব ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন হবে সেসব এলাকায় অবৈধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের অপতৎপরতা বেড়েছে। নির্বাচনি এলাকা ও ভোটারদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টির উদ্দেশ্যে প্রকাশ্যে অবৈধ অস্ত্রের মহড়া দিচ্ছে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। তাদের এই অপতৎপরতার আসল উদ্দেশ্য হচ্ছে তাদের মনোনীত প্রার্থীকে জোরপূর্বক জিতিয়ে নেওয়া। এজন্য আওয়ামী লীগের জনপ্রিয় প্রার্থী ও নেতাকর্মীদের টার্গেট করে হত্যা, ভয়ভীতি প্রদর্শন ও প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, পার্বত্য এলাকার কিছু সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর নিপীড়ন-নির্যাতন চালিয়ে আসছে। তাদের পরিকল্পিত সন্ত্রাসী হামলা ও আক্রমণে আমাদের বহু নেতাকর্মী হতাহত হয়েছেন। গত ১৬ অক্টোবর কাপ্তাই উপজেলার চিৎমরম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী নেথোয়াই মারমাকে গুলি করে হত্যা করে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা।

আমরা আশাকরি আসন্ন নির্বাচনকে সুষ্ঠু, অবাধ ও গ্রহণযোগ্য করার জন্য নিরাপত্তা বাহিনীর চলমান অভিযান আরও জোরদার করতে হবে। সুষ্ঠু নির্বাচনের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করার জন্য প্রশাসনিকভাবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করে প্রত্যেক নির্বাচন সম্পন্ন করতে হবে।

আরও পড়ুন: মেয়েকে ডাক্তারের কাছে নিতে গিয়ে মায়ের মৃত্যু

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রহুল আমিন, কামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক হমো. মুছা মাতব্বর, কৃষক লীগ সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী সাবেক সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক অভয় প্রকাশ চাকমা, দপ্তর সম্পাদক রফিক আহমদ তালুকদার ও জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা।

আলমগীর/আরবি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm