ডাক্তার দেখাতে গিয়ে ছেলেসহ নিখোঁজ অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ

মিরসরাইয়ে ডাক্তার দেখাতে গিয়ে ছেলেসহ নিখোঁজ হন এক অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ। ইতোমধ্যে ঘটনার ২৮ দিন পেরিয়ে গেলেও তাদের সন্ধান মিলেনি। বন্ধ রয়েছে ওই গৃহবধূর মোবাইল ফোনও।

এদিকে এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর স্বামী জোরারগঞ্জ থানায় জিডি করেছেন।

নিখোঁজ ওই গৃহবধু বারইয়ারহাট পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড জামালপুর গ্রামের সোহেল রানা লিটনের স্ত্রী।

Thai Food

আরও পড়ুন: অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর মৃত্যু ঘিরে রহস্য, স্বামী-শ্বশুর আটক

সোহেল রানা লিটন জানান, গত ২৮ আগস্ট দুপুর ৩টার দিকে আমার স্ত্রী ফারহানা আফরোজ বাপ্পি (২৭) ও একমাত্র ছেলে ওয়াসিফ আহম্মেদ ইফতিকে (১০) সঙ্গে নিয়ে ডাক্তার দেখাতে যান। সে আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল। এরপর থেকে তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়। এরপর আত্মীয়-স্বজনের বাড়ি ও বিভিন্ন স্থানে খোঁজ করে তাদের সন্ধান না পাওয়ায় জোরারগঞ্জ থানায় জিডি করি।

যোগাযোগ করা হলে জোরারগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুর হোসেন মামুন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, এক সন্তানসহ অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ নিখোঁজের ঘটনায় থানায় জিডি করা হয়েছে। তাদের সন্ধান পেতে চেষ্টা অব্যাহত আছে। তবে ওই গৃহবধূর ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি এখনও বন্ধ রয়েছে।

আজিজ/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm