‘সিআরবিতে হাসপাতাল’—প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তেই অটল থাকবেন মাহতাব

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ ইস্যুতে প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তে অটল থাকবেন, পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী।

তিনি বলেন, জহুর আহমদ চৌধুরীর পরিবারের রক্তে বেঈমানি নেই। আমি জহুর আহমদ চৌধুরীর ছেলে। আমৃত্যু প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ ও সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে যাব।

আরও পড়ুন: সিআরবি ‘আন্দোলনের’—আওয়ামী লীগ ‘নেতাদের’ পদত্যাগ চান মাহতাব উদ্দিন

তিনি বলেন, সিআরবিতে হাসপাতালে নির্মাণ বিষয়ে কোনো কোনো গণমাধ্যম অনুমাননির্ভর খবর প্রচার করছে। বলা হচ্ছে, সিআরবি ইস্যুতে আমি মিলিয়ে গেছি। এটা সত্য নয়। আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে আমারও দায়িত্ব রয়েছে। দলের কেউ যদি ভুল পথে যান, তাকে বুঝানোর দায়িত্বও আমার আছে; তাই বলে বিভ্রান্তি ছড়াবেন না।

Thai Food

তিনি ১২ সেপ্টেম্বর (রোববার) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবে আয়োজিত প্রয়াত আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল হারুণের স্মরণসভায় সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। এতে বক্তব্য রাখেন মোসলেম উদ্দিন চৌধুরী এমপি, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চসিকের সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান।

আরও পড়ুর: হাসপাতালের পক্ষে ‘অর্থলোভী শকুনের দল’—কড়া সমালোচনার মুখে সুজন

মাহতব উদ্দিন বলেন, গতকাল আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন আমার বাসায় আসলো। আমার কাছ থেকে মনপ্রাণে দোয়া চাইল। স্কুলজীবনের অনেক কথাবার্তা বলল। কিন্তু আজ একটি আঞ্চলিক পত্রিকা প্রকাশ করল ‘দূরত্ব ঘোচালেন মাহতাব’ শিরোনামে করল বিভ্রান্তিকর প্রতিবেদন। এসব অনুমাননির্ভর লেখা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানান তিনি।

উল্লেখ্য, ১১ সেপ্টেম্বর সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণের বিপক্ষের দুই আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ আলম সুজন ও ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী ববুল মাহতাব উদ্দিনের বাসায় যান ‘সিআরবি ইস্যুতে দেওয়া বক্তব্য নিয়ে দুঃখ প্রকাশের’ জন্য। অর্নিধারিত এ বৈঠকের বিভিন্ন ছবি দিয়ে কেউ কেউ প্রচার করেন মাহতাব তাঁর অবস্থান থেকে সরে এসেছেন। এটি যে স্রেফ অপপ্রচার রোববারের বক্তব্যে তা স্পষ্ট করলেন নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন।

এসি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm